শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কুলাউড়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী দ্বিতীয়বারের মতো জেলার শ্রেষ্ঠ কুলাউড়ার ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ কুলাউড়ায় নতুন এসিল্যান্ড শাহ জহুরুল হোসেনের যোগদান কুলাউড়া ইয়াকুব-তাজুল মহিলা ডিগ্রি কলেজের নতুন অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন দক্ষিণবঙ্গে কেন্দ্রীয় কাজী সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল হককে সম্মাননা বন্যার ২১ দিনে কুলাউড়া পৌরসভায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ৫০ কোটি টাকা কুলাউড়ায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত কুলাউড়ায় দ্বিতীয় দফায় বন্যার্তদের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের ত্রাণ বিতরণ ২১ জুলাই দ্বিপক্ষীয় সফরে স্পেনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়ক দুর্ঘটনায় স্বস্ত্রীক জুড়ীর সাংবাদিক সবুর নিহত

জুড়ীতে টিলা কেটে প্রবাসীর বাড়ীর মধ্য দিয়ে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামের প্রবাসী মোঃ ফেরদৌসুর রহমান এর বাড়ীর মাঝামাঝি জায়গা দিয়ে জোরপূর্বক রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রবাসীর বড় বোন খাজুর বেগম(৫০) বাধা দিলে মারপিটের ও অভিযোগ পাওয়া যায়।

দীর্ঘদিনের চলমান রাস্তা সংস্কার কাজে বাধা দিয়ে বার বার মিথ্যা অভিযোগের ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এলাকাবাসী।বিষয়টি স্হায়ী সমাধানের জন্য উপজেলার শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা বার বার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন।
এ নিয়ে প্রবাসী ফেরদৌসুর রহমান দুতাবাসের মাধ্যমে অভিযোগ করেন,তিনি দীর্ঘদিন থেকে প্রবাসে থাকায় বাড়ীতে স্ত্রী, বোন ও অসুস্থ বৃদ্ধ মা সহ কেবল মহিলারা বসবাস করেন।এমতাবস্থায় তাদের গ্রামের পাশ্ববর্তী আং মজিদের পুত্র আমির উদ্দিন(৩৫) ও নিজাম উদ্দিন (৩৩) আলী মিয়ার পুত্র মালু মিয়া(৪০) ও সালেক মিয়া(৩০) বলাই মিয়ার পুত্র মাখন মিয়া(৫৫) ও মাখন মিয়ার পুত্র গিয়াস উদ্দিন (৩৫) মিলে তার বাড়ীর মধ্য দিয়ে জোরপূর্বক রাস্তা তৈরী করতে বার বার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বড় বোন খাজুর বেগম বাধা দিতে গেলে তাদের হামলার স্বীকার হন। এ ঘটনায় গত ২৬ শে মে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত,মৌলভীবাজার বরাবর খাজুর বেগম বাদী হয়ে পিটিশন মামলা (১১৮/২০২২) দায়ের করেন।পুলিশ তদন্ত সাপেক্ষে আদালতে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্য উভয় পক্ষ কে স্ব স্ব অবস্হানে থাকিয়া বর্ণিত নালিশা ভূমিতে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নোটিশ প্রদান করে।
গতকাল মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সরেজমিন জানা যায়,বিরোধপূর্ণ টিলাভূমির(এস এ দাগ নং ৩৯১/৫০১)মোট জমি ১.৬১ একরের মধ্যে ক্রয়সুত্রে ২৭ শতকের মালিক ফৈরদৌসুর রহমান। উক্ত দাগে মুল মালিকের অংশিদার এর নিকট থেকে বিবাদীগন ২ শতক জমি রাস্তার জন্য ক্রয় করে বর্তমানে বিরোধীয় নালিশা ভুমিতে চৌহদ্দি উল্লেখ থাকায় মালিকানা দাবী করে রাস্তা নির্মাণের চেষ্টা চালান।
প্রবাসী ফেরদৌসুর রহমান তার ক্রয়কৃত সম্পত্তি ও বাড়ীতে একমাত্র মহিলাদের উপর হামলা,রাতে ঘরে ঢিল নিক্ষেপ করায় দুতাবাসের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্হার আবেদন করেছেন।
অন্যদিকে সাংবাদিকদের উপস্হিতির খবর পেয়ে বিবাদীগনসহ এলাকার বেশ কিছু লোকজন জড়ো হয়ে প্রবাসী ফেরদৌসুর রহমান এর পরিবার এলাকার নিরিহ প্রায় ২০ টি পরিবারের চলাচলের বাধা সৃষ্টি করে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ করেন।
এদিকে এ ঘটনায় স্হানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মেম্বারসহ গণমান্য ব্যক্তিরা আপস মিমাংসার মাধ্যমে বিষয়টির স্হায়ী সমাধানের লক্ষ্যে বৈঠকে মিলিত হয়ে ফেরদৌসুর রহমান কে রাস্তার বিনিময়ে এক শতক জমি অন্যত্র দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।কিন্তু উক্ত সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন না করে গত ৩ সেপ্টেম্বর ফের টিলা কেটে রাস্তার কাজ শুরু করেন বলে খাজুর বেগম অভিযোগ করেন।
স্হানীয় ইউপি সদস্য নুর উদ্দিন জানান,

ইউপি রাস্তা হইতে বাড়ীর রাস্তাটি প্রায় ৬ ফুট উঁচু টিলা হওয়ায় চলাচলের উপযোগী করতে টিলা কাটা ছাড়া কোনো উপায় নাই বিধায় আমরা উপজেলার সকল শালিসি নেতৃবৃন্দের মতামতে টিলা কেটে রাস্তা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিলাম।কিন্তু খাজুর বেগম শালিসি বৈঠকে সিদ্ধান্ত মেনে আবার বৈঠক শেষ হলে বাধা দেয়া শুরু করে।
ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম জানান,বিট্রিশ আমল থেকে প্রায় ২০ টি পরিবার এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে।ক্ষতিপুরণ দিয়েও বিরোধের নিষ্পত্তির চেষ্টা করে শেষ করা যাচ্ছে না।
জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সন্ঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, স্হানীয় নেতৃবৃন্দ বিষয়টি আপস মিমাংসা করে দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে বিষয়টি নিয়ে কেউ বাড়াবাড়ি করলে আইনগত ব্যবস্হা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

আরও পড়ুন
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০ | কেবিসি নিউজ ফ্রান্স
Theme Developed BY NewsFresh